আকাশ কে খোলা চিঠি



প্রিয় 
     আকাশ ...
তোমাকে আকাশ বলেই ডাকলাম বিশেষ একটা কাড়নে । কারণটা তোমার খুবই পরিচিত । তাই আর এ নিয়ে তেমন কিছু বলার অভিপ্রায় রইল না ।
      কেমন আছ তুমি এই শিশির ভেজা সকালে ? ভাল আছ তো ? নাকি এখনও
মন খারাপ করা সেই সব কথার পাণ্ডুলিপি খুলে ডুবে আছ ভাবনার গভীরে ?
আকাশ , প্রিয় আকাশ কি হবে এত ভেবে বল আর এই অবেলায় ? এই গল্পের যে কোন শেষ নেই ... বহমান নদীর মত ছুটে চলবেই অনন্ত কাল , এ নদীর  কোন মৃত্যু নেই , কোন শেষ নেই ...। তবুও তো মেনে নিতে হয় কিছু অনাদায়ী ঋণ , জানি আজ তুমিও শূন্য আমিও শূন্য । না হয় আরও একটি গল্পের ইতি টানা গেল না এই পৃথিবীর মিলন মেলায় । 
     জানো ...    বহুদিন দেখা হয়নি আমার আকাশ,দিনের আলোয়  নীল আকাশ ।
তুমি চলে যাওয়ার পর নিজেকে অনেকটা গুঁটিয়ে নিয়েছি চার দেয়ালের ভিতর , দেখা হয়নি অনেক দিন ফুলের বাগানে অলিদের অবাধ বিচরণ , সর্ষের হলুদ প্রান্তরে মৌ দের সংগ্রামী জীবন ... অথবা সন্ধ্যায় দল বেঁধে পাখীদের নীরে ফেরা , সমস্ত দিনের ক্লান্তি ভুলে নিথর হয়ে পরে থাকা শান্ত নদীর জল । শুধু মায়া লেগে আছে কিছুটা এখনও সেই পাহাড়ি ঝর্ণার জলে , সবুজ ঘাসের প্রান্তরে আর আকাশের সেই  অপরূপ নীলাভে ।  কিছুই ভুলিলি আমি , খুব যত্ন করে তুলে রেখেছি মনের আলমেরাতে তোমায় নিয়ে  আমার যত স্মৃতিময় দিন গুলো । অনন্ত কাল আমার আশ্রয়ে লালন হতে থাকবে তোমার রেখে যাওয়া শেষ চিহ্ন টুকু । 
কেন না খুব বেশী কিছু চাইনি কখনও আমি , সীমিত এই জীবনে পরিমিত কিছু চাওয়া ছিল আমার ...। হয়নি কিছুই পাওয়া ... যে কথা গুলো তোমাকে কখনই জানানোর ছিলনা আজ তোমাকে বলবো , কেন না এই বিশেষ কথা গুলো তোমার জানা টা এখন প্রয়োজন । 
আমার ঘরের ভেতর কেন ঘর থাকে না , পাঁজরের অতলে মন ... এই অরণ্য কেন আজ এত টা শূন্য , হৃদয় জুড়ে কিসের দহন ? 
এখন  আমার ঘরে ফেরার তাড়া থাকে না তেমন  , রাত গভীর থেকে হয় আরও গভীর , অন্ধকারের অতলে ডুবে যায় আমার অবহেলিত জীবন ; আমার জন্য কেউ অপেক্ষায় থাকে না , ভেতর থেকে দরজা খুলে দেবার জন্য কেউ বসে  থাকবেনা জানি আর কোন দিন  ...
প্রিয় আকাশ জানি এই চিঠি তুমি পাবে কোন একদিন ... কাড়ন আমার ভালবাসার উদ্যম দ্যুতি তোমাকে আমার কাছে টেনে আনবে বার বার ... একই আকাশের নিচে আমাদের ঠিকানা , বৃত্তের বলয় যেমন ঘুরে ঘুরে ফিরে আসে কেন্দ্রের টানে ঠিক তেমন করেই তুমিও ফিরে আসবে পরিচিত এই নির্জন অরণ্য ঠিকানায় । তুমি জানও খুব ভাল করেই আমার ঠিকানা একটাই । 
        আকাশ , প্রিয় আকাশ ... আমায় বলেছিলে তুমি , যখন তোমার কথা খুব মনে পরবে তখন আকাশের দিকে তাকিয়ে ভাবতে আমি  একা নই , তুমি আছ... তুমি আছ আমার খুব কাছেই । 
আজ খুব বেশি মনে পরছে তোমায় ... তমাকে এক পলক দেখার জন্য কি করে যে রাত কে করেছি ভোর তা শুধু আমিই জানি । বিছানায় শুধু এপাশ ওপাশ করে কাটিয়েছি ভোরের আলোর প্রতীক্ষায় । যখন আমার অপেক্ষার প্রহর শেষ করে সোনালী রোদের ঝিলিক উঁকি দিল জানালার গ্রিলে , আমি পাগলের মত ছুটে গিয়েছিলাম  আকাশের কাছে ... তোমার কাছে ...। এই কি আমার আকাশ ! এত দূরে থাকে আমার আকাশ , ইচ্ছে করলেও আজ আর ছুঁয়ে দেখতে পারিনা আমার অভিশপ্ত দুটি হাতে ।। আমার পৃথিবী তখন  অন্ধকারে তলিয়ে যায় ... এক ভয়ানক ভূমিকম্পে আমার অস্তিত্ব হারিয়ে যায় নীরবে ।
           মাঝে মাঝে আমার খুব ইচ্ছে হয় নদী হয়ে যেতে , সেই সন্ধ্যার শান্ত নিথর নদীর মত আমারও ইচ্ছে হয় আকাশের ছবি বুকে ধরে রাখতে ...।। সব পাপ আর পিছুটান মুছে তোমাকে আমার বুকের মাঝে আগলে রাখতে ...।। আমি ভুলে যাই মাঝে মাঝে এ আমার শুধু আমার একান্ত ভাবনা , যা রাত্রির অন্ধকারে ডুবে গেছে অনেক আগেই ...। আর আমার জন্য রেখে গেছে অনন্ত অপেক্ষা ...।।


       ভাল থেক আকাশ , তুমি ভাল থাকলেই যে আমি ভাল থাকব ... তুমি দূর থেকে এভাবেই থেক আমার আকাশ হয়ে অনন্ত কাল ...।



                                                  তোমারই অরণ্য 
                                                       ইতি 

Penulis : নির্জন আহমেদ অরণ্য ~ Sebuah blog yang menyediakan berbagai macam informasi

Artikel আকাশ কে খোলা চিঠি ini dipublish oleh নির্জন আহমেদ অরণ্য pada hari Thursday, 12 January 2012. Semoga artikel ini dapat bermanfaat.Terimakasih atas kunjungan Anda silahkan tinggalkan komentar.sudah ada 0 komentar: di postingan আকাশ কে খোলা চিঠি
 

0 comments:

Post a Comment